khabor.com, KHABOR.COM, khabor, news, bangladesh, shongbad, খবর, সংবাদ, বাংলাদেশ, বার্তা, বাংলা

গত দু’বছর কোন চাল আমদানি করেনি : খাদ্যমন্ত্রী

0 369

ঢাকা : খাদ্যমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, গত দু’বছর বাংলাদেশ বিদেশ থেকে কোন চাল আমদানি করেনি।তিনি আজ মঙ্গলবার ‘ক্লাইমেট চেঞ্জ ইফেক্টস অন বাংলাদেশ এগ্রিকালচার’ শীর্ষক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও খাদ্য নিরাপত্তা বিষয়ক আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা জানান।ফোরাম ফর ইনফরমেশন ডেসিমিনেশন অন এগ্রিকালচার (ফিডা) ও সেনজেন্টা বাংলাদেশ যৌথভাবে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।খাদ্য মন্ত্রী বলেন, “একটি খাদ্য ঘাটতির দেশ হিসেবে বাংলাদেশ সাহায্য অথবা খাদ্য কেনার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ঘুড়ে বেড়াতো। সে অবস্থা থেকে উত্তরণ ঘটেছে। বাংলাদেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। গত দু’বছর বাংলাদেশ কোন চাল আমদানি করেনি। বর্তমান মহাজোট সরকারের নির্বাচনী অঙ্গীকার ছিল দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করা। সরকারের কৃষক বান্ধব নীতির কারণেই দেশে খাদ্য উৎপাদন বেড়েছে।”

08272013_017_DR_RAZZAQ

ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বর্তমান সরকার দায়িত্ব গ্রহণের পর নন-ইউরিয়া সারের দাম কমিয়েছিল। ফলে কৃষক সুষম সার ব্যবহার করেছে এবং দেশে খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে।সারের জন্য কোন কৃষককে সরকারি কর্মকর্তা বা ডিলারের পেছনে দৌড়াতে হয়নি উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ২০০৭-২০০৮ সালে বিশ্বব্যাপী খাদ্য সংকট দেখা দেয়। এ সময় সরকারের হাতে প্রচুর বৈদেশিক মূদ্রা থাকা সত্ত্বেও খাদ্য আমদানি করতে পারে নি। খাদ্য রপ্তানিকারক দেশগুলো সেসময়ে রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছিল। সে পরিস্থিতিতেই আমরা দেশীয় উৎপাদন বাড়ানোর কৌশলের কথা চিন্তা করেছিলাম।

খাদ্য মন্ত্রী বলেন, চারা রোপন করতে দেরির কারণে ধানের উৎপাদন কমে যায়। এ বিষয়ে ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের গবেষণা সফল হয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রেক্ষাপটে ব্যাপক গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে। এ গবেষণালদ্ধ ফলাফলের ওপর কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির বিষয়টি সংশ্লিষ্ট। পরিবর্তিত পরিস্থিতির সাথে খাপখাইয়ে নেয়ার মত ফসলের জাত উদ্ভাবন করতে হবে। অন্যথায় খাদ্য নিরাপত্তার স্থায়ী রূপ দেয়া যাবে না।ফিডা’র সভাপতি কাওসার রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) পরিচালক ড. আসাদুজ্জামান, আন্তর্জাতিক ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ ড. জয়নাল আবেদীন, প্রেসিডেন্সি ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক মাহবুব আলী, ডেইলি স্টারের সাংবাদিক রিয়াজ আহমেদ প্রমূখ।অনুষ্ঠানে সাংবাদিক ও লেখক কাওসার রহমান সম্পাদিত ‘ক্লাইমেট চেঞ্জ ইফেক্টস অন বাংলাদেশ এগ্রিকালচার’ শীর্ষক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। এতে জলবায়ু পরিবর্তনে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের কৃষিতে কি বিরূপ প্রভাব প্রত্যক্ষ করেছেন তার অভিজ্ঞতা সম্বলিত লেখা স্থান পেয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave A Reply