রাহুল আমারও ‘বস’ বললেন সোনিয়া

0 22


সোনিয়া গান্ধী ছেলের হাতে দলের ভার ছেড়েছেন প্রায় দু’মাস হল। কিন্তু কংগ্রেসে এখনও পোক্ত হয়নি রাহুল গান্ধীর নেতৃত্ব। দলের ভিতরের খবর, প্রবীণ নেতাদের অনেকেই এখনও সোনিয়া গান্ধীর দিকেই তাকিয়ে। ছেলের তুলনায় মায়ের নেতৃত্বে বেশি স্বচ্ছন্দ ইউপিএর শরিক দলগুলোর নেতারাও। এই পরিস্থিতিতে রাহুলের কর্তৃত্ব বাড়াতে আসরে নামলেন সোনিয়া। রাহুলকে পাশে নিয়েই কংগ্রেস সংসদীয় দলের বৈঠকে বললেন, ‘‘রাহুল গান্ধী আমারও ‘বস’। এ বিষয়ে সন্দেহের কোনো অবকাশ নেই।’’আনন্দবাজার পত্রিকা

রাহুলকে সভাপতি করার জন্য কংগ্রেসের ভিতরে দাবি যেমন ছিল, তেমনই প্রবীণ নেতাদের একাংশ চাইছিলেন সোনিয়াই সভাপতি থাকুন। কংগ্রেস সূত্রে খবর, রাহুল সভাপতি হলেও তারা চান সোনিয়া সিদ্ধান্ত নিন। এমনকি রাহুলকে পাশ কাটিয়ে তারা অনেক সময়েই সোনিয়ার দ্বারস্থ হন। পাশাপাশি, ইউপিএ শরিক এবং অ-এনডিএ অনেক দলই রাহুলের নেতৃত্ব মেনে নিতে নারাজ। ফলে আগামী লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদী-বিরোধী জোট গড়ে তোলার চেষ্টায় কে নেতৃত্ব দেবেন, তা নিয়ে সংশয় তৈরি হচ্ছিল। দলের ভিতরে-বাইরে সেই সংশয় কাটাতে বার্তা দিলেন সোনিয়া।

কংগ্রেস সংসদীয় দলের চেয়ারপার্সন হিসেবে সাংসদদের সোনিয়া বলেন, ‘‘আমি জানি, যে নিষ্ঠা, আনুগত্য, উত্সাহ দিয়ে আমার সঙ্গে কাজ করেছেন, সে ভাবে তার (রাহুল) সঙ্গেও করবেন। আমি নিশ্চিত, তার নেতৃত্বে একসঙ্গে কাজ করে দলের ভাগ্য বদল করব। যে প্রক্রিয়া ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। বদলের হাওয়া আসছে।’’ রাহুলের নেতৃত্বে গুজরাট, রাজস্থানে সাম্প্রতিক সাফল্যের দৃষ্টান্ত দেখিয়ে দলকে চাঙ্গা করার চেষ্টাও এ দিন করেছেন সোনিয়া। এমনকি, লোকসভা ভোট এগিয়ে আসার সম্ভাবনা প্রকাশ করে এখন থেকেই ঝাঁপাতে বলেছেন দলকে। পাশাপাশি সমমনোভাবাপন্ন দলগুলোকে বুঝিয়ে দিয়েছেন, তাদের সঙ্গে তিনি আলোচনা চালালেও বিরোধী জোট গড়ে উঠবে রাহুলের নেতৃত্বেই।

এ দিনের বৈঠকে মোদীকে তুলোধোনা করেছেন সোনিয়া। প্রধানমন্ত্রীর ‘মিনিমাম গভর্নমেন্ট, ম্যাক্সিমাম গভর্ন্যান্স’ স্লোগানকে কটাক্ষ করে বলেছেন, এটা হল ‘ম্যাক্সিমাম মার্কেটিং, মিনিমাম ডেলিভারি’ সরকার। সোনিয়ার মতে, ২০১৪ সালে দল বড় বিপর্যয়ের মুখে পড়েছিল ঠিকই, কিন্তু তার বিশ্বাস সেটা ব্যতিক্রম ছিল। তার দাবি, মোদী সরকারের উপর মোহভঙ্গ হচ্ছে মানুষের। সেই অসন্তোষকে সমর্থনে পরিণত করতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave A Reply