মুক্তি পেলেন স্যামসাংয়ের তরুণ উত্তরাধিকারী লি

0 27

দক্ষিণ কোরিয়ার একটি আপিল আদালত স্যামসাং গ্রুপের তরুণ উত্তরাধিকারী জে ওয়াই. লি এর কারাদণ্ড স্থগিত করে তাকে মুক্তি দিয়েছে।

দুর্নীতির কেলেঙ্কারির দায়ে গ্রেপ্তার হয়ে এক বছর আটক থাকার পর সোমবার মুক্তি পেলেন স্যামসাং গ্রুপের এই ভাইস চেয়ারম্যান, জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টাস।

ঘুষ প্রদান ও তহবিল তছরুপের দায়ে লিকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছিল কোরিয়ার একটি নিম্ন আদালত। সিউলের হাই কোর্ট ওই সাজার মেয়াদ ছয় মাস কমিয়ে আড়াই বছর করে এবং দণ্ড স্থগিত করে।

বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম কর্পোরেট সাম্রাজ্যের উত্তরাধিকারী ৪৯ বছর বয়সী লি গত বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে বন্দি ছিলেন।

ঘুষ গ্রহণ, ক্ষমতার অপব্যবহার ও বলপূর্বক নিয়ন্ত্রণের অভিযোগে ক্ষমতা হারানো দক্ষিণ কোরিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট পার্ক গুয়েন হাইকে ঘুষ দেওয়ার অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন লি।

স্যামসাং গ্রুপের প্রতিষ্ঠান স্যামসাং ইলেকট্রনিক্সের উপর নিজের নিয়ন্ত্রণ জোরদার করার জন্য পার্ককে ঘুষ দিয়েছিলেন, এমন অভিযোগের পাশাপাশি তহবিল তছরুপ ও অন্যান্য অভিযোগে অগাস্টে লিকে দোষী সাব্যস্ত করেছিল নিম্ন আদালত।

উচ্চ আদালতে রায় ঘোষণার সময় লিকে ক্লান্ত লাগছিল বলে জানিয়েছে রয়টার্স, তবে রায় ঘোষণার পর তিনি কোনো আবেগ প্রকাশ করেননি।

তার মুক্তির বিষয়ে সরকারি কৌঁসুলিরা ও স্যামসাং গ্রুপ তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি।

কৌঁসুলিরা লিয়ের ১২ বছরের কারাদণ্ডের আর্জি জানিয়েছিল।

আইন বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, যে রায় ঘোষিত হয়েছে তার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে ফের আপিল করা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মুক্তি পাওয়ার পর স্যামসাং ইলেকট্রনিক্সের পরিচালকসহ লি যে যে দায়িত্বে আছেন তা চালিয়ে যেতে পারবেন। এক বছর কারাগারে থাকার সময় তিনি শারীরিক পরিশ্রম ও বই পড়ে সময় কাঁটিয়েছেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যম।

Print Friendly, PDF & Email

Leave A Reply