শোনা কথা, আপনি নাকি ধরা খেয়েছিলেন: ফারিয়া (ভিডিও)

38

 

মিডিয়াতে কাজ করলে নাকি ‘স্যাক্রিফাইস’ করতে হয়- এমন মন্তব্য করে গত কয়েকদিন ধরে মিডিয়া পাড়ায় আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন ফারিয়া শাহরিন। তার এই মন্তব্য নিয়ে মিডিয়ার অনেকেই বিভিন্ন মন্তব্য ও পাল্টা মন্তব্য ছুড়ছেন। এদের মধ্যে জনৈক এক লাক্স সুন্দরী সরাসরি নাম উচ্চারণ না করে বলেন, ”আপনি দুধে ধোয়া তুলসি পাতা না।” এবার ফারিয়া সেই মন্তব্যের জবাব দিলেন ফেসবুক লাইভে। তবে এখানেও তিনি কারও নাম উল্লেখ করেননি।

ফারিয়া বলেন, ”আমার নিউজটা একটি জাতীয় দৈনিকের অনলাইনে প্রকাশ হওয়ার পর সাধারণ জনগণের কাছ থেকে একটা মিক্সড রি-অ্যাকশন পেয়েছি। এর মধ্যে ভালো রি-অ্যাকশন অনেক, খারাপও আছে। এর মধ্যে আমাকে নিয়ে লাক্সের আরেকজন কিছু স্টেটমেন্ট দিয়েছেন, কি নোংরা তার ভাষা। বিয়ে করেছেন, অনেকদিন মিডিয়া থেকে দূরে, মনোযোগ আকর্ষণ বা অন্য কোনো কিছুর জন্য… আই হ্যাভ নো আইডিয়া। একটা সময় আমার বন্ধু ছিল। এখন কি কারণে সে এই স্টেটমেন্টটা দিয়েছে, তা জানি না। কিন্তু তার ভাষাটা সম্পর্কে বলি,… একটা উদাহরণ দেই, বলতেও ঘৃণা লাগছে, সেটা হলো ‘আপনি কি … … আব্দুল্লাহ হয়েছেন’।”

ফেসবুক লাইভে ফারিয়া শাহরিন আরও বলেন, ”তিনি আবার বলেছেন, আমি নখের সমান যোগ্য না। সুবর্ণা মুস্তাফা ম্যাম, বিপাশা হায়াত ম্যাম, শমী কায়সার ম্যাম- আমি আসলেই নখ কেন তারা যে নখটা কেটে বাস্কেটে ফেলে দেন আমি তারও যোগ্য না। আমি কখনোই বলেনি, মিডিয়ার সবাই খরাপ। অবশ্যই মিডিয়াতে ভালো মানুষ আছে।”

ফারিয়া বলেন, ”তিনি(জনৈক লাক্স সুন্দরী) আমাকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, আমরা কেউই ধোয়া তুলসি পাতা না। এটা আমি একদম মানতে পারলাম না। আপনি ধোয়া তুলসি পাতা না, আপনি জানেন; মিডিয়ার বহু মানুষ জানে; এমনকি মিডিয়ার বাইরের মানুষও জানে যে, আপনি ধোয়া তুলসি পাতা না। কিন্তু ফারিয়াকে যদি ওই গণ্ডিতে মাপেন, তাহলে আমি আত্মবিশ্বাসের সাথে মিডিয়াতে স্টেটমেন্ট দিতে পারব, আমি ধোয়া তুলসি পাতা।”

ফারিয়া বলেন, ”আপনি যে ধোয়া তুলসি পাতা না- এটা সবাই জানে। আমরা কেউ ধোয়া তুলসি পাতা না- আপনার গণ্ডির ভেতর দয়া করে ফারিয়াকে আনবেন না। আপনি বলেছেন, আমরা কেউ ধোয়া তুলসি পাতা না। আপনি প্রমাণ করেন ফারিয়া ধোয়া তুলসি পাতা না। আপনার তো ডিরেক্টর বলেন, আপনি চ্যানেলের প্রোগাম হেড বলেন, আপনি গায়ক বলেন- সব সেক্টরেই আপনার বিচারণ ঘটেছে। আপনি কি এটা অস্বীকার করতে পারেন? আপনি কি কি করেছেন, না করেছেন সব আমার মাথায়, কানে এসেছে। এবং সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো আপনি মনে হয় কোনো একটা দেশে আটকেও গিয়েছিলেন। রাইট, ইফ অর নট রং? কোনো একটা দেশে যেন কি একটা খারাপ কাজ করতে গিয়ে বা ‘সামথিং’ কিসের সময় যেন আপনি ধরা পড়ছিলেন, শোনা কথা আপনাকে কোথাও নাকি যেন আটকানো হয়েছিল। সুতরাং কারও দিকে ‘ফিঙ্গার’ পয়েন্ট করার আগে আপনি নিজে দেখেন আপনার ‘হ্যান্ড ক্লিন’ নাকি।”

তিনি আরও বলেন, ”উনি আমাকে আরেকটি কথা বলেছেন যে, আমাকে নাকি এখন কেউ কাজে নেয় না। ও মাই গড! হোয়াট এ জোক! আমি স্টিল প্রমাণ করতে পারব, এমন ১০টা ডিরেক্টর-প্রডিউসারকে সামনে আনতে পারব, যারা আমাকে প্রতিনিয়ত ‘নক’ করে।”

৪১ মিনিটের ফেসবুক লাইভের এক পর্যায়ে ফারিয়া বলেন, ”আমি একটি ক্লাস ফ্যামিলিতে বাস করি। আমি হঠাৎ করে গ্রাম থেকে এসে, গ্রামকে ব্যঙ্গ করছি না, বোরকা পরে গ্রাম থেকে এসে হঠাৎ করে উলঙ্গ হয়ে নাচা শুরু করিনি। আমি হঠাৎ করে স্মার্ট হয়নি।”

 

Print Friendly, PDF & Email

Comments are closed.