ইরান-ইরাক সীমান্তে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২০০ মৃতের সংখ্যা বাড়ছে

30

ইরান-ইরাকের পার্বত্য সীমান্ত এলাকায় প্রচন্ড ভূমিকম্প এবং এর ফলে সৃষ্ট ভূমিধসের ফলে কমপক্ষে ২শ’ জন নিহত ও আরো কয়েকশ’ লোক আহত হয়েছে। রিখটার স্কেলে এ ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৩। দুর্গত এলাকায় ব্যাপক উদ্ধার তৎপরতা চালানো হচ্ছে। সোমবার দেশটির কর্মকর্তারা একথা জানান।
রবিবার রাতে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। টুইটারে দেয়া এক ভিডিও ফুটেজে ইরাকের উত্তরাঞ্চলীয় সুলাইমানিয়া এলাকার লোকজন ভূমিকম্পের ঘটনায় আতংকিত হয়ে ঘরবাড়ি থেকে দৌড়াদৌড়ি করে পালাতে দেখা যায়। ভূমিকম্পে অনেক ভবনের জানালার কাঁচ ও দেয়াল ভেঙ্গে পড়ে। এদিকে ইরানের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার কেন্দ্র আইআরআইবি জানায়, এখন পর্যন্ত এ ভূমিকম্পে ১২৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তাদের ওয়েবসাইটে হালনাগাদ এ তথ্য দেয় হয়েছে। সরকারি বার্তা সংস্থা আইআরএনএ জানায়, ভূমিকম্পে প্রায় ৩শ’ লোক আহত হয়েছে। ফলে মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ভূমিকম্পে ইরাক সীমান্তে আরো ছয়জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

ইরানের কারমানশাহ প্রদেশের ডেপুটি গভর্নর মোজতাবা নিক্কারদেও বলেন, ‘আমরা জরুরি ভিত্তিতে তিনটি ত্রাণ শিবির স্থাপনের জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছি।’ মার্কিন ভূ-তাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা জানায়, ইরাকের কুর্দিস্তানের হালাবজার ৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে স্থানীয় সময় রাত ৯টা ২০মিনিটের দিকে এ ভূমিকম্প আঘাত হানে। ইরানের জরুরি সার্ভিসের প্রধান পির হোসাইন কলিভান্ড জানান, ভূমিধসের কারণে রাস্তা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেক এলাকা যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ায় তাদের পক্ষে উদ্ধার দল পাঠানো কঠিন হয়ে পড়েছে। আইআরএন জানায়, রেডক্রসের ৩০টি উদ্ধার দল ভূমিকম্প ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় পাঠনো হয়েছে। এদিকে ইরাকের সরকারি কর্মকর্তারা জানান, সুলাইমানিয়া প্রদেশে শক্তিশালী ভূমিকম্পের আঘাতে ছয়জন নিহত ও প্রায় দেড়শ’ জন আহত হয়েছে। এএফপি।

Print Friendly, PDF & Email

Comments are closed.