khabor.com, KHABOR.COM, khabor, news, bangladesh, shongbad, খবর, সংবাদ, বাংলাদেশ, বার্তা, বাংলা

২০২২ বিশ্বকাপ চলকালে বিদেশী পুলিশ কর্মকর্তা নিয়োগ দেবে কাতার

0 22

২০২২ বিশ্বকাপ চলাকালে সমর্থকদের মধ্যে দাঙ্গা-হাঙ্গামা প্রতিরোধে কাতারের রাস্তায় মোতায়েন থাকবে বিভিন্ন দেশের পুলিশ কর্মকর্তা। টুর্নামেন্ট কমিটির একজন সিনিয়র নিরাপত্তা কর্মকর্তা এ কথা জানিয়েছেন।

ডেলিভারি এন্ড লিগেসি বিষয়ক শীর্ষ কমিটির নিরাপত্তা বিষয়ক নির্বাহী পরিচালক মেজর আলী মোহাম্মদ আল -আলী আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, ‘কাতার বিশ্বকাপ আসরটি হবে বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ আসর।’

২০১৬ সালে ফ্রান্সে অনুষ্ঠিত ইউরো টুর্নামেন্টে ইংলিশ ও রুশ সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক দাঙ্গার সৃষ্টি হয়েছিল। এরপর থেকে বড় দলগুলোর প্রতিদ্বন্দ্বিতার সময় সেটি আরো বাড়ার আশংকা করা হচ্ছে। যে কারণে ভবিষ্যতের টুর্নামেন্টগুলোতে এই বিষয়টিকে যথেষ্ট গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। তবে আলী’র প্রত্যাশা ২০২২ সালের আসরে এরকম কোন কিছু ঘটবে না। তিনি বলেন, ‘আমরা জাতীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সংগঠন ও এজেন্সির সঙ্গে এ বিষয়ে প্রচুর কাজ করছি। সারা বিশ্বের মধ্যে আমরাই একমাত্র দেশ যেখানে বিশ্বকাপ শুরুর ১০ বছর আগে থেকে সেটি নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে।’

বার্তা সংস্থা এএফপি’কে তিনি বলেন, ‘এটি নিশ্চিত যে এসব সমস্যা সামলানোর অভিজ্ঞতাসম্পন্ন আন্তর্জাতিক পুলিশ কর্মকর্তাদের হাতেই এই দায়িত্ব ন্যস্ত করা হবে। যে সব দেশ ২০২২ বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে সে সব দেশ থেকেই পুলিশ কর্মকর্তাদের এ কাজের জন্য নিযুক্ত করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।’

মধ্যপ্রাচ্যে প্রথমবারের মত আয়োজিত এই বিশ্বকাপ ফুটবল চলাকালে সেখানে ১৩ লাখ সমর্থক সফর করবে বলে আশা করা হচ্ছে, যা দেশটির মোট জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে আধুনিক বিশ্বের সবচেয়ে ঘন বসতির অঞ্চলে পরিণত হবে দেশটির রাজধানী দোহা। কারণ এই সময় দেশটি ভ্রমণে যাওয়া সমর্থকদের প্রায় সবাই সেখানে অবস্থান করবে। যেটি নিরাপত্তা ব্যবস্থায় সমস্যা সৃষ্টি করবে।

নিরাপত্তা পরিস্থিতির পাশাপাশি উপসাগরীয় এই দেশে যুক্ত হয়েছে কূটনৈতিক সমস্যা। বিগত ৫ মাস ধরে দেশটির সঙ্গে প্রতিবেশী ৫টি দেশের সঙ্গে চলমান বিরোধ এই শঙ্কা আরো বাড়িয়ে দিয়েছে।

তবে চলতি সপ্তাহে দোহায় অনুষ্ঠিত নিরাপত্তা সম্মেলনে বক্তৃতা দেয়ার সময় আলী বলেছেন, নতুন এক ইতিহাস রচনা করার জন্য আয়োজকরা প্রস্তুত। তিনি বলেন, ‘আমরা সব কিছুর জন্যই প্রস্তুত। এই আসরটিকে বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ বিশ্বকাপ টুর্নামেন্টে পরিণত করার জন্য আমরা প্রস্তুত।’

Print Friendly, PDF & Email

Leave A Reply