khabor.com, KHABOR.COM, khabor, news, bangladesh, shongbad, খবর, সংবাদ, বাংলাদেশ, বার্তা, বাংলা

পঞ্চমবারের মতো বর্ষসেরা রোনালদো

0 28

ফের বর্ষসেরা ‘দ্য বেস্ট ফিফা মেনস প্লেয়ার’ পুরস্কার জিতেছেন রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। সোমবার লন্ডনের পলেডিয়াম থিয়েটারে বার্সেলোনার মেসি ও পিএসজির নেইমারকে পেছনে ফেলে টানা দ্বিতীয়বারের মতো জিতে নেন এই পুরস্কার। জমকালো অনুষ্ঠানে বিজয়ী হিসেবে তার নাম ঘোষণা করেন দু্ই কিংবদন্তি আর্জেন্টিনার দিয়েগো ম্যারাডোনা ও ব্রাজিলের রোনালদো।
রোনালদো এবারসহ পঞ্চমবারের মতো জিতলেন ফিফা বর্ষসেরা পুরস্কার। স্পর্শ করলেন এর আগে পাঁচবার বর্ষসেরা হওয়া মেসির রেকর্ড। গত বছরের ২০ নভেম্বর থেকে এ বছরের ২ জুলাই পর্যন্ত খেলোয়াড়দের অর্জন বিবেচনায় বর্ষসেরা নির্বাচন করা হয়। এই পুরস্কারের জন্য গত অগাস্টে ২৪ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করেছিল ফিফা। সেপ্টেম্বরে তা তিন জনে নামিয়ে আনা হয়। সেখান থেকেই এবার রোনালদোকে বেছে নেয়া হলো রোনালদোকে।
১৯৯১ সাল থেকেই নিয়মিতভাবে বর্ষসেরা ফুটবলার পুরস্কার দিয়ে আসছিল ফিফা। ২০১০ সাল থেকে ফ্রান্স ফুটবলের ব্যালন ডি’অরের সঙ্গে মিলে একীভূত হয়ে সেটির নাম হয়ে যায় ফিফা-ব্যালন ডি’অর। ছয় বছর এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকার পর গত বছর আবার আলাদা হয়ে যায় ফিফা আর ফ্রান্স ফুটবল। কিছু পরিবর্তন এনে ব্যালন ডি’অর দেওয়া হচ্ছে আগের মতোই। আর ফিফার পুরস্কারটা গত বছর যাত্রা শুরু করেছে ‘দ্য বেস্ট’ নামে। প্রথমবারও সেরা হয়েছিলেন রোনালদো। সেই নতুন সংস্করণে প্রথমবার সেরা হয়েছিলেন রোনালদো।

জীবনের ‘দারুণ এই মুহূর্তে’ ভক্ত, সতীর্থ, কোচ, টিম ম্যানেজম্যান্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন রোনালদো।পুরস্কার হাতে এ পর্তুগিজ তারকা বলেন, ‘আমাকে ভোট দেওয়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। আমি লিও ও নেইমারের কথা বলব, এখানে উপস্থিত থাকাটা দারুণ ব্যাপার। রিয়াল মাদ্রিদ সমর্থক, আমার সতীর্থ, আমার কোচ, সারা বছর তারা আমাকে সহায়তা করেছে। প্রথমবারের মতো আমরা ইংল্যান্ডে আর আমি টানা এই পুরস্কার জিতলাম। আমি সত্যিই খুব আনন্দিত। আমার জন্য এটা দারুণ একটি মুহূর্ত।
গ্রেট খেলোয়াড়দের মাঝে এখানে আসতে পারাটা দারুণ। আমি ভীষণ খুশি। ‘

ব্যক্তিগত দারুণ পারফরম্যান্সের পাশাপাশি এ বছর রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে চারটি শিরোপা জয়ের গর্বিত অংশীদার রোনালদো। তাই রোনালদোই যে বর্ষসেরা পুরস্কারের দৌড়ে এগিয়ে থাকবে এটা অনুমিত ছিল।

Print Friendly, PDF & Email

Leave A Reply