khabor.com, KHABOR.COM, khabor, news, bangladesh, shongbad, খবর, সংবাদ, বাংলাদেশ, বার্তা, বাংলা

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে সার্ক স্পিকার্স এসোসিয়েশন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে : স্পিকার

47

ঢাকা : স্পিকার ও সিপিএ চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে সার্ক স্পিকার্স এবং পার্লামেন্টারিয়ান্স এসোসিয়েশন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।তিনি আজ শ্রীলংকার রাজধানী কলম্বোতে সার্ক স্পিকার্স এন্ড পার্লামেন্টারিয়ান্স এশোসিয়েশনের ৮ম কনফারন্সের জেনারেল এসেমম্বলিতে বক্তৃতায় একথা বলেন।

সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় জেনারেল এসেম্বলির আগে তিনি স্পিকার্স কাউন্সিলের সভায় যোগদান করেন। এরপর ৮ম স্পিকার্স সম্মেলনের উদ্বোধন করেন শ্রীলংকার রাষ্ট্রপতি মাইথ্রিপালা শ্রীসেনা। ৮ম সার্ক স্পিকার্স সম্মেলন স্মারক ডাক টিকেটের উম্মোচন শেষে স্মারক বইতে স্বাক্ষর করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। জেনারেল এসেম্বলীর দ্বিতীয় পর্বে সভাপতিত্ব করেন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

স্পিকার বলেন, শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠা ,জলবায়ু পরিবর্তন, দারিদ্র ও বৈষম্য নিরসন,মানব সম্পদ উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়ন, সামাজিক নিরাপত্তাবলয় তৈরীসহ গুরত্বপূণ ইস্যুতে জনগণের স্বার্থে সংসদ কাজ করতে পারে। কেননা সংসদই সকল কর্মকান্ডের কেন্দ্রবিন্দু। আর সংসদকে ঘিরে সংসদ সদস্যগণ দয়িত্ব পালন করে গেলে, কমিটি পদ্ধতির মাধ্যমে সরকারের জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে পারলে এবং বাজেট প্রণয়নে জনগণের আশা আখাংকার প্রতিফলন ঘটাতে পারলে শান্তি ও সমৃদ্ধি অর্জন সম্ভব, যার মাধ্যমে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা ২০৩০ সহজে অর্জিত হতে পারে।

তিনি বলেন, সার্ক স্পিকার্স কনফারেন্সের জনগণের চাহিদা অনুয়ায়ী বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করার সুয়োগ রয়েছে। এজন্য প্রয়োজন এক মত ও একই কন্ঠে কথা বলা। বিশ্ব বিবেককে জাগ্রত করতে একতার বিকল্প নেই। যে কোন ঝুঁকি মোকাবেলা করে শান্তি প্রতিষ্ঠায় সার্ক স্পিকার্স সম্মেলন পরিবর্তন আনবেই বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। একদিকে চলছে উন্নয়ন, অন্যদিকে নানা সীমাবদ্ধতা সত্বেও সীমিত সম্পদের সর্বোচ্চ ব্যবহার করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন তিনি।

স্পিকার বলেন, প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের শুধু আশ্রয়ের ব্যবস্থাই করেননি, তিনি বলেছেন, প্রয়োজনে ১৬ কোটি মানুষের খাবার ভাগাভাগি করবেন। শুধু তাই নয় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সাধারন অধিবেশনে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বলিষ্ঠ কন্ঠে উচ্চারণ করেছেন বাস্তবসম্মত শান্তির প্রস্তাব।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী রানিল বিক্রমাসিংহে ও সার্ক ভুক্ত পার্লামেন্টের স্পিকারবৃন্দ। ৮ম সার্ক স্পিকার্স কনফারেন্সের প্রেসিডেন্ট ও শ্রীলংকা পার্লমেন্টের স্পিকার কারু জয়সুরিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জেনারেল এসেম্বলিতে উপস্থিত ছিলেন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ও মালদ্বীপের স্পিকার আব্দুল্লা মাসিহ মোহাম্মেদ।

বক্তৃতা করেন ভূটানের স্পিকার জিগমে জ্যাংপো, ভারতের লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মাহাজন ও নেপালের স্পিকার ঘারতি অনাসারি । কনফারেন্সে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের সদস্য হুইপ শহীদুজ্জামান সরকার, সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি এমপি, তালুকদার মোঃ ইউনুস এমপি, সৈয়দা সায়রা মহসীন এমপি ও সংসদের সিনিয়র সচিব ড. মোঃ আবদুর রব হাওলাদার এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সার্কভুক্ত পার্লামেন্টের প্রতিনিধিদলের সংসদ সদস্য সহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email

Comments are closed.