khabor.com, KHABOR.COM, khabor, news, bangladesh, shongbad, খবর, সংবাদ, বাংলাদেশ, বার্তা, বাংলা

বৃত্তি ও শিক্ষা ক্ষেত্রে নেদারল্যান্ডের সহযোগিতার আশ্বাস

0 79

দি হেগ: নেদারল্যান্ড বৃত্তি ও শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ করে তৈরী পোষাকের মান বৃদ্ধি ও পোষাক কর্মীদের সক্ষমতা বৃদ্ধি, সমুদ্র অর্থনীতি, পানি কূটনীতি ইত্যাদি বিষয়ে সহযোগিতা জোরদার করার আশ্বাস দিয়েছে। গত ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখে বাংলাদেশ দূতাবাস ও ডাচ সরকারের শিক্ষা আন্তর্জাতিকিকরণ প্রতিষ্ঠান নাফিকের মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকে পারস্পরিক সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা হয়। রাষ্ট্রদূত শেখ মুহম্মদ বেলালের নেতৃত্বে বাংলাদেশ দূতাবাসের একটি প্রতিনিধিদল নাফিকের পরিচালক থিও হুখমিস্ট্রা এর সাথে দেখা করে এবং সম্ভাব্য বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতার প্রস্তাব সম্বলিত একটি বিস্তারিত কার্যপত্র হস্তান্তর করে।

বাংলাদেশ দূতাবাস ও নাফিক গত দুই বছর ধরে বাংলাদেশ ও নেদারল্যান্ডের মধ্যে ২০১৫ সালের জুন মাসে স্বাক্ষরিত জ্ঞান ও সৃজনশীলতা অংশীদারিত্ব বিষয়ক সমঝোতা স্মারকের আওতায় সম্ভাব্য কি কি ক্ষেত্রে সহযোগিতা জোরদার করা যেতে পারে তার উপর কাজ করে আসছে। বৈঠককালে রাষ্ট্রদূত বেলাল ডাচ প্রযুক্তি ও কর্মপন্থা প্রয়োগ করে বাংলাদেশের তৈরী পোষাক শিল্পকে আরও উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যাবার আহ্বান জানান। তিনি উল্লেখ করেন যে, নেদারল্যান্ড তাদের ফ্যাশন ডিজাইন, প্রডাক্ট ডেভেলপমেন্ট, বিপণন, ব্রান্ডিং, কৌশলগত আলাপ-আলোচনায় যে উৎকর্ষ সাধন করেছে তা বাংলাদেশের প্রয়োগের মাধ্যমে তৈরী পোষাক খাতকে উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারে যেখান থেকে এ খাত বিভিন্ন ‘নিশ’ মার্কেটেরও চাহিদা পূরণে সমর্থ হবে।

বৈঠককালে পানি কূটনীতি, সমুদ্র অর্থনীতি, বিচার বিভাগের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য ও চামড়া শিল্পের আধুনিকায়নে নাফিকের সহযোগিতা কামনা করা হয়। পানি ব্যবস্থাপনায় ডাচদের বিশ্বজোড়া খ্যাতির কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বেলাল বাংলাদেশ ও তদসংলগ্ন অঞ্চলের পানি সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে ভবিষ্যত কূটনীতিক ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের তৈরি করার উপর গুরুত্বারোপ করেন। বাংলাদেশের জন্য সমুদ্র অর্থনীতির গুরুত্ব বর্ণনা করতে গিয়ে তিনি কিভাবে বাংলাদেশ শান্তিপূর্ণ আলাপ-আলোচনা ও শালিসের মাধ্যমে বিশালাকার সমূদ্র সীমার উপর সার্বভৌমত্ব প্রতিষ্ঠা করেছে তার বিবরণ দেন। তিনি জানান যে, টেকসই পদ্ধতিতে সমুদ্র সম্পদ আহরণের জন্য সরকার সমুদ্র অর্থনীতির উপর বিশেষভাবে জোর দেয় এবং নেদারল্যান্ডের সহযোগিতা কামনা করে। তিনি বাংলাদেশের বিচার বিভাগীয় প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউটের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্যও সহযোগিতার অনুরোধ জানান।

বাংলাদেশ ও নেদারল্যান্ড চামড়া শিল্পে সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহযোগিতার উপায় নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। নেদারল্যান্ড সম্প্রতি বাংলাদেশের চামড়া শিল্পের উপর একটি গবেষণা পরিচালনা করে এবং এই শিল্পের আধুনিকায়নে সহযোগিতার প্রস্তাব দেয়।

উল্লেখ্য যে, ডাচ সরকারের শিক্ষা আন্তর্জাতিকিকরণ প্রতিষ্ঠান নাফিক বাংলাদেশে বেশ কয়েক বছর ধরে পানি সম্পদ, খাদ্য নিরাপত্তা, প্রজনন স্বাস্থ্য ইত্যাদি ক্ষেত্রে সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন প্রকল্পে জড়িত রয়েছে। বৈঠককালে দূতাবাসের কাউন্সিলর কাজী রাসেল পারভেজ ও নাফিকের উর্ধ্বতন প্রোগ্রাম অ্যাডমিনিস্ট্রেটর বির্গেট ফস উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave A Reply