Share

চট্টগ্রাম : কর্ণফুলী নদীর নিচ দিয়ে বহুল প্রতীক্ষিত বহুমুখী টানেল সড়কের নির্মাণ কাজ আগামী মাসে শুরু হবে বলে আশা করা হয়েছে। এতে ব্যয় হবে সাড়ে ৮ হাজার কোটি টাকা। প্রকল্পের পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার কবির আহমেদ বলেন, ‘টানেল এবং কর্ণফুলী নদীর দুই তীরে টুইন সিটি নির্মাণের প্রাথমিক কাজ সম্পন্ন হয়েছে।’চীনের আর্থিক ও কারিগরি সহযোগিতায় টানেল নির্মিত হবে এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগ নির্মাণ কাজ তদারক করবে।

কবির আহমেদ বলেন, চীনা ইঞ্জিনিয়ার এবং সংশ্লিষ্ট কর্মীদের আবাসিক ভবনসহ প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।তিনি বলেন, ‘সম্ভাব্যতা যাচাই সমীক্ষা এবং টানেলের জন্য ১,১০০ একর জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে।’টানেল নির্মাণ কাজে বিদ্যুতের চাহিদা সম্পর্কে তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে আজ পর্যন্ত ২ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পাওয়া গেছে। নির্মাণ কাজ স্বাভাবিকভাব চালিয়ে যেতে ১৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহে সক্ষম একটি সাব-স্টেশন শিগগিরই স্থাপন করা হবে।

টানেলের দৈর্ঘ হবে ৩ দশমিক ৫ কিলোমিটার নদীর উভয় পাড়ে এপ্রোচ রোড হবে প্রায় ৬ কিলোমিটার। টানেল প্রস্তাবিত এশিয়ান হাইওয়ে থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের সঙ্গে যুক্তি হবে।
চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (সিসিসিআই) সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, টানেল চট্টগ্রামের ব্যবসা-বাণিজ্যের নতুন দিগন্তের উন্মোচন ঘটাবে এবং দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।তিনি বলেন, টানেল চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের মধ্যে সড়ক দূরত্ব কমাবে, এছাড়াও ঢাকা থেকে চট্টগ্রামগামী যানবাহনের যানজট কমাবে।

Print Friendly
Share
 
 

0 Comments

You can be the first one to leave a comment.

Leave a Comment

 




 

*

 
 
46Total Views
Share
Share

Hit Counter provided by shuttle service from lax