Share

ঢাকা : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম মশা নিধনে দুই সিটি কর্পোরেশনের আন্তরিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলেছেন, তাদের অদক্ষতায় রাজধানীতে চিকনগুনিয়া রোগের বিস্তার ঘটছে।স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেন, রাজধানী পরিস্কার রাখা আমাদের কাজ না। রাজধানী পরিস্কার রাখতে এবং মশক নিধনে সিটি কর্পোরেশনের আন্তরিকতার অভাবে নগরীতে চিকনগুনিয়া রোগের বিস্তার ঘটছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী আজ নগরীর ওসমানি স্মৃতি মিলনায়তনে আয়োজিত বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যপ্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক ঢাকা দক্ষিন সিটি কর্পোরেশন ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সমালোচনা করে বলেন, চিকনগুনিয়া ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার দায়দায়িত্ব তাদেরকেই নিতে হবে।তিনি বলেন, রাজধানীবাসী গত কয়েক সপ্তাহ ধরে চিকনগুনিয়া রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। দুটি সিটি কর্পোরেশন মশার বংশ বিস্তার রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে ব্যার্থ হয়েছে। তারা নগরীর জলাশয়গুলো সময় মতো পরিস্কার করতে ব্যার্থ হয়েছে। মশার প্রজনন মওসুমের আগেই এ সকল জলাশয় পরিস্কার করতে হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, চিকনগুনিয়া কোন ঘাতক রোগ নয়। মশা বাহিত জীবানুর মাধ্যমে এ রোগ ছড়ায়। তিনি বলেন, যথাযথ চিকিৎসা সুবিধা নিশ্চিত করা এবং সকল মন্ত্রনালয়,সরকারি মেডিকেল কলেজের দশ হাজার ছাত্র ও কর্মচারিদের অংশগ্রহনের মাধ্যমে সভা সমাবেশ করে জনসচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে চিকনগুনিয়া রোগ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে। তিনি বলেন, এই রোগ প্রতিরোধে আমরা গত তিন মাস ধরে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।

স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সচিব এম সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব সিরাজুল হক খান এবং স্বাস্থ্য সেবার মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. আবুল কালাম আজাদও বক্তব্য রাখেন। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, চিকনগুনিয়া রোগে আক্রান্তের শরীরে জ্বর ও ব্যাথাসহ বিভিন্ন উপসর্গ দেখা দিতে পারে।

Print Friendly
Share
 
 

0 Comments

You can be the first one to leave a comment.

Leave a Comment

 




 

*

 
 
55Total Views
Share
Share

Hit Counter provided by shuttle service from lax