কাজী আরিফের মৃত্যুতে আবৃত্তিশিল্পী মিথুন আহমেদের বেদনা বিধুর বিবৃতি

98

আকবর হায়দার কিরন ,নিউ ইয়র্ক: ভারাক্রান্ত হৃদয়ে বেদনা বিধূর মন নিয়ে একথা জানাচ্ছি যে, আজ ২৯ শে এপ্রিল ২০১৭ শনিবার নিউ ইয়র্ক সময় দুপুর ১২: ৫৫ মিনিটে বাঙলা ভাষার বরেণ্য আবৃত্তিকার, মুক্তিযোদ্ধা ও স্থপতি কাজী আরিফ পৃথিবীর জাগতিক মায়া ছেড়ে অমর্ত্যলোকের পথে যাত্রা করেছেন।আমরা তাঁর আত্মার শান্তির কামনায় শুদ্ধের উচ্চারণে যেন সমবেত হই।বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সকল রকম প্রচেষ্টা পর্যায়ক্রমে অসফল হতে থাকলে তাদের সর্বশেষ পরামর্শে পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁর কনিষ্ঠা কন্যা অনুসূয়ার উপস্থিতিতে শিল্পী কাজী আরিফের লাইফ সাপোর্ট সরিয়ে নেবার সিদ্ধান্ত স্থির হয়। এই সময় কাজী আরিফের দুই অনুজ সহদোরাও উপস্থিত ছিলেন। গত ২৪শে এপ্রিল মঙ্গলবার নিউ ইয়র্কের মাউন্ট সাইনাই সেইন্ট লুকস হাসপাতালে তাঁর ওপেন হার্ট সার্জারি সম্পন্ন হয়েছিল। কিন্তু এই অস্ত্ৰপচার সম্পূর্ণরূপে সফল না হওয়ায় কৃত্রিম উপায়ে শ্বাস-প্রশ্বাস ক্রিয়াকে অব্যাহত রাখা হয়। পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে ফুসফুস ও যকৃত সংক্রামিত হতে থাকলে ধীরে ধীরে তাঁর শারিরীক পরিস্থিতির দ্রুত অবনতি ঘটতে থাকে এবং নানা প্রকার জটিলতার প্রকোপ বাড়ে।

বাকশিল্পী কাজী আরিফের পৈত্রিক নিবাস ফরিদপুরে। সত্তর দশকের শেষ ভাগে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থপত্যে স্নাতক সম্পন্ন করেন।তিনি দেশের একজন মেধাবী স্থপতি হিসেবেও খ্যাতিমান ছিলেন। বাংলাদেশের একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে এক নং সেক্টরে সশস্ত্র সংগ্রামে সম্মুখ সমরে সরাসরি অংশগ্রহণ করেন।

বাংলাদেশের প্রথম আবৃত্তি ক্যাসেটের সূচনা তাঁর হাত ধরে। ‘মুক্তকন্ঠ আবৃত্তি একাডেমী’ নামে আবৃত্তি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন ১৯৮৬ সালে।স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন, জাতীয় কবিতা পরিষদ ও ১৪০০ সাল উদযাপন পর্ষদ – এ তিনি বিশেষ ভূমিকা পালন করেন।

আবৃত্তি শিল্পীদের নিয়ে গড়ে ওঠা ‘আবৃত্তিকার সংঘ’ তৈরীতেও তাঁর পরিশ্রম অপরিসীম।বাংলাদেশে আবৃত্তিকে একক শিল্পের মর্যাদায় গড়ে তুলবার অন্যতম অগ্রপথিক এবং বাঙলা ভাষায় আধুনিক প্রয়োগ রীতিতে আবৃত্তি চর্চার অন্যতম প্রধান বাকশিল্পী কাজী আরিফ। সংস্কৃতি কর্মী, শিল্পী, আবৃত্তিকার ও প্রবাসের বাঙালী অভিবাসী জনগোষ্ঠীর পক্ষ থেকে এই মহান মুক্তিযোদ্ধা শিল্পীর প্রতি জানাই আমাদের গভীর শ্রদ্ধা। কাজী আরিফের স্বদেশ চেতনা ও শিল্পবোেধ অম্লান হোক এই অসাম্প্রদায়িক ধর্মনিরপেক্ষ বাংলাদেশে।

 

Print Friendly, PDF & Email

Comments are closed.